শাহরুখ যাকে ঘৃণা করেন তার সাথেই করতে চান সুহানা প্রেম, কে সেই ব্যাক্তি তা দেখলে চমকে যাবেন…

0
5449

বলিউডের সবচেয়ে বেশী আলোচিত মানুষদের মধ্যে একজন হলেন অবশ্যই বলিউডের বেতাজ বাদশা শাহরুখ খান। তিনি কোন নায়িকার সাথে জড়ান না। কোন জায়গায় চরম মদ্যপ অবস্থায় দেখা যায় না তাকে। কিন্তু তা সত্ত্বেও মিডিয়া তার পিছনে পড়ে থাকে, যদি একটু হলেও কোন বিতর্কিত খবর তার কাছ থেকে পাওয়া যায়।

কিন্তু সাধারনত তিনি কোন সময়েই কাউকে কোন সুযোগ দেন না তার দিকে আঙ্গুল তোলার। সেইজন্যই বোধহয় সবাই পড়ে থাকেন তার পিছনে।

শাহরুখ খান সবচেয়ে বেশি যাকে নিয়ে পসেসিভ তারা হলেন তার ছেলেমেয়ে। তার ছেলেমেয়েদের নিয়ে কেউ কিছু বললে তিনি মারাত্মক রেগে যান। তাদের জন্য তিনি অনেক সময় মারামারিও করেছেন। অনেকবার শুধুমাত্র তাদের জন্য তিনি মিডিয়ার সাথে জড়িয়ে পড়েছেন অত্যন্ত ঝামেলায়।

কিন্তু সাম্প্রতিক এক ঘটনায় লোকে ভাবছে ছেলেমেয়েরা নিজের বাবার ব্যাপারে একইরকম ভালবাসা রাখে না। কারণ আর কিছুই নয়। সম্প্রতি এক মিডিয়ায় সুহানা বলেছেন তিনি কাকে ভালোবাসেন। সেই খবরেই সম্ভবত রেগে গেছেন শাহরুখ খান। অন্তত লোকে সেইরকমই ভাবছেন। কিন্তু আপনি জানেন কি সুহানা ভালবাসার মানুষ হিসেবে কার নাম বলেছেন ?

সুহানার কাছে জানতে চাওয়া হয়েছিল বলিউডের কোন অভিনেতার সাথে তিনি ডেটে যেতে চান। তাতে তিনি যা উত্তর দিয়েছেন তাতে চমকে গেছেন মিডিয়ার লোকেরা। বাবার সবচেয়ে বড় শত্রুর নাম নিয়েছেন তিনি। কে তিনি জানতে আপনারও আগ্রহ হচ্ছে ?

আসুন তাহলে আপনাকে অবসেশে জানানো যাক তার নাম। তিনি আর কেউ নয়, তিনি হলেন শাহিদ কাপুর। আপনারা ভাবতে পারেন যে কিভাবে বা কেন শাহিদ কাপুরকে আমরা বলছি শাহরুখের শত্রু ? আসল কথা হল ডন সিনেমাটি করার সময় প্রিয়াঙ্কার সাথে ঘনিষ্ঠতা হয় শাহরুখের। সেই ঘনিষ্ঠতা মুকুলেই মরে যায় যদিও।

অনেকে বলেন এমন কিছু হয়নি, কিন্তু অনেকে আবার ভাবেন যে এইরকমই ঘটনাটা ঘটেছিল। শাহরুখ যদিও চিরকাল খুব মুক্ত একজন পুরুষ, যার চরিত্রে কোন কলঙ্কের দাগ পড়েনি। প্রিয়াঙ্কার সময়ে সবাই মনে করেছিল তার চরিত্রেও বোধহয় এবার পড়তে চলেছে দাগ।

কিন্তু তিনি বেরিয়ে গিয়েছেন সব কিছু ছেড়ে। এর পরে প্রিয়াঙ্কা গিয়েছিলেন শাহিদের কাছে। এখন শাহিদের বিয়ে হয়ে গেলেও সুহানা তার সাথে ডেটে যেতে চাইছেন বলে কি তবে শাহরুখের মনেও ফুটছে কাঁটা ?

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here