বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বাড়ির মহিলারা এই কাজ করলে সংসারে টাকার দরজা খুলে যাবে…

0
17982

বৃহস্পতিবার হল লক্ষ্মীর বার। এই বারে মা লক্ষ্মীর পূজো করলে বাড়ির মঙ্গল হয়। বাড়ির যা যা সংকট আছে সব কেটে যায়। পুরান কাহিনী অনুযায়ী মা সীতা আশির্বাদ করেছিলেন যে কলিযুগেও তিনি অমর ও অজেয় থাকবেন। তাই আজ আমাদের সকলের মাঝে তিনি রয়েছেন মা লক্ষ্মী রূপে। বৃহস্পতিবার কিছু কিছু নিয়ম আছে লক্ষ্মী পুজো করার।

সেই নিয়ম গুলি মেনে চললে কাঙ্খিত ফল পাবেন খুব শীঘ্রই। কোন ভক্ত যদি নিয়ম ও নিষ্ঠা মেনে পূজা করেন তাহলে তার সমস্ত দুঃখ ও কষ্ট দূরীভূত হবে। আর শস্ত্রে বলা আছে যে কোন গৃহিণী যদি সন্ধ্যায় এই নিয়ম মেনে কিছু কাজ করেন তাহলে সংসার সুখে সম্পদে ভরে উঠবে। সেই নিয়ম গুলি হল…

কোন স্ত্রী যদি প্রতি বৃহস্পতিবার হনুমান চালিশা পাঠ করেন এবং তার উদ্দেশ্যে ভোগ নিবেদন করেন আর সেই নিবেদন করা ভোগ যদি শিশুদের মধ্যে বিলিয়ে দেন তাহলে তার কৃপা সর্বদা সংসারের উপর থাকে। কথায় বলে শিশুদের মধ্যেই ভগবান বাস করে। তাই শিশুদের খাওয়ালে ভগবানের আশির্বাদ পাওয়া যায়।

ধরুন আপনি বেশ কিছুদিন ধরে কোন সমস্যায় ভুগছেন, আপনার সমস্যা ক্রমশ বেড়েই চলেছে। এমন অবস্থায় যদি আপনার বাড়ির কোন স্ত্রীমানুষ হনুমানজির মূর্তি অথবা ছবির সামনে এক টুকরো ফিটকিরি রেখে দেন, তাহলে কিছুদিনের মধ্যে সব সমস্যা দূর হয়ে যাবে।

হিন্দু শাস্ত্রে এমনই কিছু লেখা আছে, কোন মহিলা যদি মঙ্গলবার সন্ধ্যাবেলা পাঁচটি প্রদীপ জ্বালান এবং তার মুখগুলো উত্তর দিকে রেখে দেন, তাহলে তা সংসারের জন্য খুব মঙ্গলের। বলা হয় উত্তর দিক হল মা লক্ষ্মী ও ধন দেবতা কুবেরের দিক।

আরও একটি কাজ ভুললে চলবে না যে প্রদীপ জ্বালানোর আগে অবশ্যই হনুমান চালিশা পাঠ করতে হবে। আর পাঠ করার পর মনে মনে আপনার স্বামীর মঙ্গল কামনা করুন। তার পরের দিন সকালে বেঁচে যাওয়া তেল আপনার স্বামীর গায়ে মালিশ করে দিন।

বলা হয় এতে আপনার স্বামীর আয় বৃদ্ধি ও উন্নতি হবে। প্রতিদিন প্রদীপ জ্বালালে বাড়ি থেকে সমস্ত অশুভ শক্তি দূরে থাকবে। তাই সন্ধ্যাবেলা প্রতিদিন প্রদীপ জ্বালিয়ে সন্ধ্যা দেওয়া উচিৎ। এতে সংসারের মঙ্গল হয়। এই নিয়মগুলি মেনে চললে আপনার সংসারে উন্নতি হবেই, তবে তা সম্পূর্ণ নির্ভর করে আপনার বিশ্বাসের উপর।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here