সামান্য খরচে চুল স্ট্রেটনিং করুন ঘরে বসেই। পার্লারে যেতে হবে না আর…

0
4967

চুল স্টেটনিং করার জন্য মেয়েরা পার্লারে গিয়ে অনেক টাকা খরচ করে। কম করে ৪ থেকে ৫ হাজার টাকা তো লাগেই। টাকা খরচ করেও চুলের ক্ষতি ছাড়া ভালো কিছু হয় না। চুল সোজা দেখানোর জন্য ব্যবহার করা হয় নানা রকম ক্ষতিকারক রাসায়নিক। তার সঙ্গে চুলে অত্যাধিক গরম স্ট্রেটনারের সাহাজ্যে চুল স্ট্রেট করা হয়।

কিন্তু তার মেয়াদ বেশিদিন না। কিছু মাস পরেই চুল নষ্ট হয়ে যেতে শুরু করে। চুল রুক্ষ হয়ে যায়, চুল পড়তে শুরু করে। তার সঙ্গে চুলের আগা ফেটে যাওয়ার মত সমস্যা হয়। অল্প দিনের স্টাইলের জন্য চুল নষ্ট হয়ে যায়। তাই বলে কি চুলে স্টাইল করবেন না? নিশ্চই করবেন। তবে একটু আলাদা পদ্ধতিতে।

আর আগেই বলে রাখি এই পদ্ধতিতে চুল স্ট্রেট করতে হলে আপনাকে একটু ধৈর্য ধরতে হবে। কিছু প্রাকৃতিক উপাদানের মাধ্যমে আপনি আপনার চুল স্ট্রেট করতে পারে। আর এর ফলে আপনার চুলের কোন ক্ষতি তো হবেই না, বরং আপনার চুল হবে আরো উজ্জ্বল ও আরো সুন্দর।

তাহলে আসুন জেনে নিন কি কি ঘরোয়া উপাদান ব্যবহার করা যেতে পারে। যেগুলি লাগবে সেগিলি হল – ২ চামচ কর্নফ্লাওয়ার, ২ চামচ লেবুর রস, ১০০ মিলি জল, ৬ চামচ অ্যালোভেরা জেল, ২ কাপ নারকেল কোরানো, ২ চামচ ক্যাস্টর অয়েল

প্রথমে নারকেল কোরা, জল ও অ্যালোভেরা জেল নিয়ে একটি পাত্রে মিশিয়ে নিন। তারপর একটি পরিষ্কার কাপড়ে ঢেলে নিয়ে ভালো করে নিংড়ে নিন। ব্যাস তৈরি হয়ে গেল অ্যালোভেরা জেল মেশানো নারকেল দুধ। তারপর লেবুর রস কর্নফ্লাওয়ার আর ক্যাসটর অয়েল মিশিয়ে নিন।

একটি পাত্রে প্রথমে অ্যালোভেরা মেশানো নারকেলের দুধ গরম করতে হবে। তার সঙ্গে কর্ফ্লাওয়ারের মিশ্রন দিতে হবে। সব মিশ্রন একসঙ্গে গরম করে একটা পেস্ট তৈরি করে নিতে হবে। তারপর সেই মিশ্রনটি ঠান্ডা করার জন্য রাখতে হবে।

এরপর পুরো চুলে পেস্টটি ভালো করে লাগিয়ে নিতে হবে। কিন্তু ভুল করেও চুল বাধবেন না। চুলে পেস্ট লাগিয়ে চুল আঁচরে চুল খুলে রাখবেন। তারপর ১ ঘন্টা সেটি রাখুন। চুল সম্পুর্ন শুকিয়ে গেলে ভালো করে ধুয়ে শ্যাম্পু করে নিতে হবে। এভাবে কিছুদিন পর পর করলে আপনার চুল সোজাও হবে আর সঙ্গে ভালো হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here