মায়া লাগাইসে… ফিউশনের সাথে লোকগীতির মেলবন্ধন…

0
653

শাহ আব্দুল করিম, নামটি লোকগীতির জগতে ভয়ানক চেনা একটি নাম।প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা এবং চাকরী ছেড়ে শুধুমাত্র গানের সন্ধানে তিনি বেড়িয়েছেন আজীবন।১৬০০ এর কাছাকাছি গান তিনি লিখেছেন ও সুর দিয়েছেন। ২০০১ সালে একুশে পদক পাওয়া এই শিল্পীর অন্যতম জনপ্রিয় গান বন্দে মায়া লাগাইসে। সেই অন্যতম জনপ্রিয় গানটি এবার ফিউশন রূপে শুনতে পাবো আমরা। যিনি এই গানটি গেয়েছেন তিনি মৌ চট্টোপাধ্যায়।

পারিবারিক পরিচয়ে তাকে চিনবেন অনেকেই। তিনি স্বনামধন্য রামকুমার চট্টোপাধ্যায়ের নাতনী। শ্রীকুমার বন্দ্যোপাধ্যায়ের মেয়ে।বাড়ির মূল সুর পুরাতনী বৈঠকি হলেও তিনি সমান ভালোবাসেন ফিউশনের জগতকেও।সব রকমের গানেই তার সমান আগ্রহ। তাই গানের সময় তার অনায়াস যাতায়াত কমার্শিয়াল থেকে ফিউশনে।

সাথে পুরাতনী বৈঠকি গানগুলোকেও তিনি সমান গুরুত্ব দেন। মৌ চট্টোপাধ্যায়ের মতে সময় বদলাচ্ছে,সাথে বদলাচ্ছে মানুষের গানের পছন্দও। তাই পুরনো লোকগীতি বা অন্যান্য গান যদি ফিউশনের মাধ্যমে করা যায় শ্রুতিমধুর এবং তা দর্শকের কাছাকাছি পৌছতে সাহায্য করে, তাতে কোন ভুল নেই।

অবশ্য মূল গানের সুর অবিকৃত রেখে অবশ্যই ফিউশনকে কাজে লাগাতে হবে গানের সৌন্দর্য বৃদ্ধিতে। তাই চেনা লোকগীতিকে তিনি ফিউশনের আলোয় আনতে চান মানুষের সামনে।‘মায়া লাগাইসে’ সেই ফিউশনের দিকেই একটা ধাপ।এই গানের অ্যারেঞ্জমেন্ট করেছেন মৌ এর দাদা ঋষিকুমার চ্যাটার্জী,গানের রিদম ডিজাইনারও তিনিই। সরোদ বাজিয়েছেন প্রতীক শ্রীবাস্তব,সাউন্ড ডিজাইন করেছেন সুদীপ সাঁতরা, কি বোর্ড এ আছেন তন্ময় চ্যাটার্জী।লোকগীতির সাথে ফিউশনের এই মেলবন্ধন মানুষের মন ছুঁয়ে যাবে কোন সন্দেহ নেই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here