সানি দেওলের ঘায়েল সিনেমার এই অভিনেত্রীকে দেখলে জল আসবে আপনার চোখে…

0
8227

আটের দশকের এই অভিনেত্রী কেড়ে নিয়েছিলেন বহু দর্শকের মন। কিন্তু আটের দশক তেমনভাবে সাফল্য এনে দিতে পারেনি এই হিরোইনকে। যদিও পরিচিতি হয়েছিল, নাম হয়েছিল তার। কিন্তু অভিনেত্রী হিসেবে তার যোগ্য সম্মান আসে নব্বই এর দশকে।

তখন তাকে দেখলেই দর্শকদের বুক দুরুদুরু, হৃদয় আনচান করত। তাকে দেখার জন্য লম্বা ভিড় পড়তো। মস্ত লাইনের শেষেও টিকিট কাটতে দাঁড়িয়ে যেতো লোকে শুধুমাত্র তাকে দেখেই। চিনতে কি পারলেন কার কথা হচ্ছে ?

ঘায়েল সিনেমার কথা কি মনে আছে আপনাদের ? সেই সিনেমায় সানি দেওলের সাথে নায়িকা ছিলেন যিনি, তাকে কি মনে আছে ? একটু মনে করে দেখুন। তিনি আর কেউ নয় মীনাক্ষী শেষাদ্রী। শুধু এই সিনেমার জন্য নয়, আপনারা তাকে চেনেন দামিনী সিনেমার কল্যানেও।

১৯৯৩ সালে দামিনী সিনেমায় অভিনয় করে তিনি বুঝিয়ে দেন নিজের অভিনয় প্রতিভা। বলিউডকে জানিয়ে দেন যে একজন বড় অভিনেত্রীর জন্ম হয়েছে। ১৯৯৫ সালে তিনি বিয়ে করেন হরিশ মেশোরকে। ১৯৯৬ সালে ঘায়েল সিনেমা দিয়ে তিনি শেষ করেন নিজের কেরিয়ার।

কেন তিনি শেষ করে দিলেন এত সম্ভাবনাময় কেরিয়ার এত কম সময়ের মধ্যে ? সেটা অবশ্য জানেনা কেউই। মিডিয়াতে তাকে নিয়ে নানান আলোচনা আর নানান গুজবের মধ্যে কোনটা যে আসল আর কোনটা যে নকল তা বোঝার মতো অবস্থা নেই। অনেকে ভাবেন বিয়ের জন্যই অভিনয় ছেরেছিলেন তিনি। আবার অনেকে ভাবেন স্বামী তাকে অভিনয় করতে বারণ করেছিলেন।

এর মধ্যে কোনটা আসল কারণ সে নিয়ে মীনাক্ষীকে বারবার প্রশ্ন করা হলেও কোন জবাব পাওয়া যায়নি। মিডিয়ার সাথেও আর সেইভাবে যোগাযোগ দেখা যায়নি তার। বরং মিডিয়ার থেকে লুকিয়ে থাকতেই দেখা গিয়েছিল তাকে। আর কোনরকম ভাবে সিনেমা জগতের কারোর সাথেও তার যোগাযোগ হয়নি। অন্তত জানা গেছে তেমনই।

আর যদি হয়েও থাকে সেই খবর কোন না কোন কারণে মিডিয়ার কাছে যাওয়া একদমই সম্ভব হয়নি। মিডিয়া অবশ্য খবরের পিছু নেওয়া ছাড়ে না। শেষ পর্যন্ত দেখবে বলে তারা ছিল মীনাক্ষির সন্ধানে। পরে জানা গেছে তার সিনেমা ছড়ার কারণ তার বাচ্চারা।

বাচ্চাদের দায়িত্ব এসে যাওয়ার পর আর কোন বড় কাজে তিনি রাখতে চাননি নিজেকে ব্যস্ত। বিয়ের পর টেক্সাসের প্লানো শহরে তিনি থাকেন। সেখানেই তিন ছেলে মেয়ে আর স্বামির সাথে মীনাক্ষির সংসার। সেখানে ছোট বাচ্চাদের নাচ সেখান তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here