প্রেমিকার বিয়েতে গিয়ে নিজেদের অন্তরঙ্গ চ্যাটের স্ক্রিনশটের প্রিন্টআউট বিলি করলো ছেলেটি…

0
29718

আমাদের জীবনে এমন অনেক ঘটনার সম্মুখীন হতে হয় যার জন্য আমরা সব সময় প্রস্তুত থাকিনা। তবুও আমাদের জীবনে এরকম ঘটনা ঘটে। এরকমই একটা অবাক করা ঘটনা আপনাদের আজ আমি বলবো। এই প্রতিবেদন পড়ে আপনি বুঝবেন ভালোবাসায় মানুষ কিনা করতে পারে। এটি একটি প্রেম সংক্রান্ত ঘটনা। দুজন প্রেমিক প্রেমিকার মধ্যে ঘটেছে এই ঘটনা।

ভালোবাসা এমন এক অনুভুতি যা মানুষকে কাঁদায় আবার এই ভালোবাসাই মানুষকে হাসায়, সুখে ভরিয়ে দেয় জীবন। এই প্রেমের গল্পটি পুরোটা জানলে আপনি চমকে যাবেন। ঘটনাটি শুরু হয় এক প্রেমিক প্রেমিকার মধ্যে ছোট্ট ভুল বোঝাবুঝি নিয়ে।

যাকে ভালোবাসি তার অন্য কারোর সঙ্গে বিয়ে হচ্ছে সেটা জানলে কোন ছেলেরই মাথার ঠিক থাকেনা। এটা জেনেও কোন ছেলে তার প্রেমিকার বিয়েতে উপস্থিত থাকবে সেটা ভাবাই যায়না। বুকে দম থাকলে তবেই একজন প্রেমিক এই কাজ করতে পারে।

ছেলেটির তার প্রেমিকার বিয়েতে উপস্থিত থাকার একটাই কারন। অকারনে ভুল বুঝে প্রেমিকা তাকে ছেড়ে চলে গেছে।। ছেলেটির নাম হল অনিক আর মেয়েটির নাম সাম্বিয়া। এই বিয়ের প্রায় দুমাস আগে তাদের ভুল বোঝাবুঝির কারনে ব্রেক আপ হয়।

সাম্বিয়ার তার প্রেমিকের উপর অভিযোগ ছিল যে সে তাদের সম্পর্কের ব্যাপারে একদম সচেতন নয়। কিন্তু আদৌ এরকম ব্যাপার নয়। আসল ব্যাপার হল মেয়েটির জন্য তার বাবা একটি সম্বন্ধ এনেছিল। সেই ছেলেটি তার বাবার বন্ধুর ছেলে।

ছেলেটি কানাডায় থাকে, তাই বিদেশে থাকার লোভে সাম্বিয়া নিজের প্রেমিককে ধোকা দেয়। তাদের প্রায় আট মাসের সম্পর্ক ছিল। তাদের এই আট মাসের সম্পর্ক ভেঙে দেওয়ায় খুব কষ্ট পায় অনিক। তাই সে তার প্রাক্তনের বিয়েতে পৌঁছে যায়।

সেখানে খুব স্বাভাবিক বিয়ের পরিবেশ ছিল। ছেলেটিও সেখানে খুব স্বাভাবিক ভাবে প্রবেশ করেছিলো, কিন্তু সেখানে গিয়ে সে যা করলো তা মোটেই স্বাভাবিক নয়। সে তাদের সম্পর্ক থাকাকালীন সব চ্যাটের স্ক্রিনশট প্রিন্টআউট করে সেখানে গিয়েছিল।

বিয়েবারিতে উপস্থিত সব অতিথি এবং সব বর যাত্রীদের মাঝে অনিক সেই প্রিন্টআউট বিলি করে আর নিজের ফোন তাদের সব ব্যাক্তিগত মুহুর্তের ছবিগুলি দেখায়। এরপর কি ঘটেছিল তা অনিক নিজেও জানেনা। সে আর তারপর থেকে সাম্বিয়ার সঙ্গে কোন যোগাযোগ করেনি।

কিন্তু যখন যখন তার সেই ঘটনা মনে পড়ে সে ভীষণ আনন্দ পায়। সে তার কষ্টের প্রতিশোধ নিয়েছে তাই ভেবে অনিক খুব খুশি। এই ঘটনাটি সত্যিই একটি শিক্ষা বহন করে। কোন মানুষকে ভালোবাসায় ধোঁকা দিলে নিজেরও একদিন বিপদ হতে পারে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here