এই সাতটি জায়গায় ভুলেও শারীরিক সম্পর্ক করবেন না, তাহলে হতে পারে মহা বিপদ…

0
34077

নারী পুরুষকে যা এক করে তা হল শারীরিক মিলন। আর এই শারীরিক মিলনেরও কিছু নিয়ম আছে। যেখানে সেখানে শারীরিক সম্পর্ক করা কখনোই উচিত নয়। সেরকম কিছু করলে হতে পারে মহা বিপদ। এমন কথাই বলছে হিন্দু পুরাণ। পুরানে যখন লেখা আছে তাহলে সেই কথার তাৎপর্য নিশ্চই আছে। দেখে নিন কোন সেই জায়গা আর কি সেই কারন…

১। শ্মশানের ধারে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করা কখনোই উচিত নয়। এর ফলে সেখানে ঘোরাফেরা করা আত্মার প্রভাব পড়ে আপনাদের সম্পর্কের উপর। আপনার সংসারে প্রচুর সমস্যা দেখা দিতে পারে।

২। কোন মন্দির বা তার সামনে কোন জায়গায় শারীরিক সম্পর্ক করা কখনোই উচিত নয়। ভগবানের সামনে এরকম কাজ করা কখনোই ঠিক নয়। এর ফলে যে কোন সময় ঘটে যেতে পারে অঘটন।

৩। নদীর ধারে কখনোই শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত হতে নেই। এর ফলে আপনার জীবনে ঘটে যেতে পারে অনেক বিপদ। নদীকে আমরা মা রূপে পুজো করি। আর তার সামনে কোন খারাপ কাজ করা মানে নিজের বিপদ নিজেই ডেকে আনা।

৪। আগুনের সামনে কখনো শারীরিক সম্পর্ক করা উচিত নয়। অনেকে অগুন জ্বালিয়ে বেশ একটা রোম্যান্টিক পরিবেশ তৈরি করে লিপ্ত হয় শারীরিক সম্পর্কে। কিন্তু তা একদম করা উচিত নয়। কারন হিন্দু শাস্ত্র মতে আমরা অগ্নিকে দেবতা হিসাবে মানি। আর দেবতার সামনে যৌ-ন কর্ম পাপের কারন। এরকম করলে আপনি পড়তে পারেন অগ্নি দেবের রোষানলে।

৫। ব্রাহ্মণের সামনে কখনোই শারীরিক সম্পর্ক করা উচিত নয়। ব্রাহ্মনরা হলেন ঈশ্বরের পূজারী। তাদের সামনে কখনোই কোন খারাপ কাজ করা উচিত নয়। এমন কোন কাজ করলে পাপ হয়।

৬। অন্যের ঘরে কখনো শারীরিক সম্পর্ক করা উচিত নয়। সে কোন আত্মীয় স্বজনের বাড়ি হোক বা কোন বন্ধুর বাড়ি। অন্যের ঘরে শারীরিক সম্পর্ক করলে ক্ষতি হবে আপনাদের সম্পর্কের। আপনাদের স্বামী স্ত্রীর মধ্যে সুসম্পর্ক আর বজায় থাকবে না।

৭। কখনো কোন রোগীর সামনে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করা উচিত নয়। এর ফলে আপনাদের জীবনে বিপদের পরিমান অনেকাংশে বেড়ে যায়। আপনার জীবন হয়ে উঠতে পারে যন্ত্রনা ময়।

আপনি যদি এই নিয়মগুলি ঠিক মত মেনে চলতে পারেন তাহলে আপনার দাম্পত্য জীবন হয়ে উঠবে সুখের। থাকবেনা কোন ঝামেলা ও অশান্তি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here