বিয়ের আগে সঙ্গীকে এই ৬ টি প্রশ্ন অবশ্যই করুন… সারাজীবন সুখে থাকবেন…

0
17477

বিবাহের সিদ্ধান্ত আমাদের জীবনের এক অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত। বিবাহের পর একটি মানুষের জীবনের আমুল পরিবর্তন ঘটে। সেই বদল একটি মেয়ের জীবনে বেশি আসে। স্বামী স্ত্রীর পবিত্র সম্পর্ক যাতে সুন্দর থাকে, সারা জীবন তার দায়িত্ত্ব কিন্তু উভয়েরই। বৈবাহিক সম্পর্ক একদিকে আপনার জীবনকে করে তুলতে পারে স্বর্গ। আবার সিদ্ধান্তের সামান্য ভুলে জীবন হয়ে উঠতে পারে নরক। জীবনকে নরক না করতে চাইলে চোখ কান খোলা রেখে মন খুলে বাচুন। আবেগের বশবর্তী হয়ে নয়। সেক্ষেত্রে ভুলের মাসুল গুনতে হবে আপনাকে।

কিন্তু বুঝবেন কি করে যে এই মানুষটিই সেই যে আপনার যোগ্য সঙ্গী না সঙ্গিনী ? আদর্শ সম্পর্ক বলে কি সত্যিই কিছু হয় ? নাকি পুরোটাই দেয়া নেওয়ার খেলা ? এখন অদৃষ্ট যদি আপনার কপালে দুর্ভোগ লিখে থাকে তাহলে কে আর তা খণ্ডাতে পারে। তবে আপনি সতর্কতা অবলম্বন করতেই পারেন। আজকাল ছাদনা তলায় গিয়ে শুভদৃষ্টি কারুর হয় না।

ডিয়ার জিন্দেগি ছবিতে ডঃ জাহাঙ্গীরের ভাষায় বলতে গেলে, আরাম কেদারা কিনতে গিয়ে আমরা যেমন পরখ করে দেখে নি, আরাম মিলছে কিনা। জীবন সঙ্গী বেছে নেবার ক্ষেত্রে সেই পদ্ধতি গ্রহণ করলে অন্যায়টা কোথায় ? তাই সম্পর্ককে আইনি ভাবে পাকাপাকি করে নেবার আগে নিশ্চিত হয়ে নিন সব দিক থেকে। কিছু প্রশ্নের উত্তর জেনে নিন আগে ভাগে।

১। আপনার সঙ্গী আপনাকে কেন ভালবাসেন ? এই প্রশ্নটি সবার আগে করুন আপনার সঙ্গীকে। দেখুন তার উত্তর আপনার মন জয় করছে কিনা। একটি মানুষকে সত্যি করে ভালোবাসার আসলে কোন কারণ হয়না। আবার বলতে গেলে কারণ গুনে শেষ করা যায় না। যাকে আপনি ভালোবাসেন তার শুধু ভালো গুণ গুলোর সমাদর করবেন আর খারাপের জন্য তাকে ঘৃণা করবেন তা তো হয় না। সেরকম ভালোবাসায় খাদ থাকে। তাই ভালোভাবে খেয়াল করুন আপনার সঙ্গীর উত্তর। বিশেষ কোন কারণে যদি তিনি আপনাকে বিয়ে করতে চান তবে তার উত্তর হবে মিষ্টি কথায় সাজানো।

২। ভালবাসাকে বাঁচিয়ে রাখতে তিনি কি কি করবেন ভবিষ্যতে ? ভালোবাসাকে সারা জীবন সতেজ রাখা খুব দরকার নইলে তা অপ্রয়োজনীয় ভারী বস্তার মতো হয়ে যায়। তাই সম্পর্ককে মজবুত করার জন্য তিনি কত দূর পর্যন্ত যেতে পারেন তা জানা জরুরি। খুব বোকা বোকা উত্তর দিলে আপনি বুঝবেন যে সামনের মানুষটি সরল।

৩। কেন সে আপনার সাথে সারাটা জীবন কাটাতে চায় ? এই প্রশ্নের উত্তর আপনার সঙ্গীর মনে আপনার প্রতি ভালোবাসার প্রকাশ করবে। মানুষটি কি কারণে আপনার সাথে সারাটা জীবন কাটানোর সিদ্ধান্ত নিল তা জেনে রাখা আবশ্যক।

৪। মানিয়ে নিতে কতটা স্বচ্ছন্দ সে ? একসাথে সারাটা জীবন কাটানোর অর্থ অনেক কিছু মানিয়ে নেওয়া। সেই মানিয়ে নেবার ইচ্ছা থাকা দরকার দুই তরফের। আপনি একা সাড়া জীবন যদি মানিয়ে নেবার দায় নেন তবে সে সম্পর্কের মৃত্যু খুব তাড়াতাড়ি ঘটবে। তাই জেনে নিন কতটা আপোষ করতে সে আগ্রহী।

৫। কষ্টের দিনের ভাগীদার হবে তো সে ? সুখ ও দুঃখ দুই মিলেই জীবন। তাই জেনে নিন যে সঙ্গী আপনার দুঃখের দিনে পাশে থাকতে কতটা আগ্রহী।

৬। সন্তানদের জন্য কতটা ত্যাগ স্বীকার করবে সে ? বিবাহ পরবর্তী জীবনে সন্তানের দায়িত্ত্ব নেবার সময় যখন আসবে কতটা পাশে পাবেন তাকে আপনি, একথা জানাও জরুরী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here